বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪

আওয়ামী লীগ মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করবে শুক্রবার থেকে

সিসিএন অনলাইন ডেস্কঃ

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর এখন দলের মনোনয়ন কার্যক্রম শুরু করে দেবে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। এ লক্ষ্যে আগামী শুক্রবার থেকেই আগ্রহীদের মধ্যে দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু করবে দলটি।

আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্র জানিয়েছে, আজ মঙ্গলবার তফসিল ঘোষণার সিদ্ধান্ত হওয়ার পরই আওয়ামী লীগের নেতারা দলীয় ফরম বিক্রি শুরুর বিষয়ে প্রস্তুতি শুরু করেন। বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে শুক্রবার সকাল থেকে ফরম বিক্রি শুরু হবে। এর জন্য ১০টি বুথ নির্মাণ করা হচ্ছে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের জন্য দুটি করে চারটি বুথ থাকবে। আর বাকি ছয় বিভাগের প্রতিটির জন্য একটি করে বুথ থাকবে। ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়ার জন্য চার-পাঁচ দিন সময় দেওয়া হতে পারে বলে জানা গেছে। এবার অনলাইনেও ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়া যাবে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া প্রথম আলোকে বলেন, দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রির সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। শিগগিরই ফরম বিক্রি শুরু হবে।

এবার আওয়ামী লীগের দলীয় ফরম ৫০ হাজার টাকায় বিক্রির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত নির্বাচনে ফরমের দাম ছিল ৩০ হাজার টাকা। গত নির্বাচনে দলীয় ফরম বিক্রি করে ১৩ কোটি টাকার মতো আয় করে আওয়ামী লীগ। এবার ৩০ কোটি টাকার বেশি আয় করার চিন্তা আছে দলটির।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ২০১৮ সালের ৯ থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত দলের ধানমন্ডি কার্যালয় থেকে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে আওয়ামী লীগ। গতবার ৪ হাজার ২৩টি ফরম বিক্রি করে ক্ষমতাসীন দলটি।

আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্র জানিয়েছে, ফরম বিক্রি কার্যক্রম দেখতে দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা ও দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে। কেন্দ্রীয় নেতারাও নিয়মিত ফরম বিক্রির কার্যক্রম তদারকি করবেন।

দলীয় ফরম বিক্রি করার পর সব তালিকা নিয়ে আনুষ্ঠানিক বৈঠক শুরু করবে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড। এই বোর্ডের প্রধান দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আট বিভাগের প্রার্থী চূড়ান্ত করতে অন্তত চারটি বৈঠক হতে পারে। এসব বৈঠকে প্রতিটি আসন ধরে ধরে আগ্রহীদের বিষয়ে আলোচনা হবে। সাধারণত ভোটের আগে দলীয় প্রধান শেখ হাসিনা প্রতিটি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের নিয়ে সমীক্ষা করেন। এবারও দলীয় প্রার্থী মনোনয়নে প্রতি ছয় মাস পরপর একাধিক সমীক্ষা করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি। এর মধ্য থেকে চূড়ান্ত প্রার্থী ঠিক করা হবে।

আসন্ন নির্বাচনে বরাবরের মতো আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দল জোটগতভাবে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছে। কিছু আসন জোটের শরিকদের ছেড়ে দেবে আওয়ামী লীগ। এর বাইরে সমমনা আরও কিছু দলের সঙ্গে নির্বাচনকালীন সমঝোতা হতে পারে। এ ক্ষেত্রে সমমনাদের কিছু আসনে ছাড় দিতে পারে ক্ষমতাসীন দলটি।

তফসিল ঘোষণার পরপরই আওয়ামী লীগ ঢাকাসহ সারা দেশের পাড়ায়-মহল্লায় তফসিলকে স্বাগত জানিয়ে মিছিলের কর্মসূচি নিয়েছে আওয়ামী লীগ। দলটির নেতারা বলছেন, এর মূল লক্ষ্য হচ্ছে তফসিল ঘোষণার পর থেকেই দেশকে একেবারে নির্বাচনের ডামাডোলে সম্পৃক্ত করা।

আরও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর