মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০২৪

আন্তর্জাতিক চকলেট দিবস আজ

সিসিএন অনলাইন ডেস্ক:

চকোলেট খেতে কে না ভালোবাসে! চকোলেটের নাম শুনলেই অনেকের মুখে পানি চলে আসে। ডার্ক চকোলেট, হোয়াইট চকোলেট, মিল্ক চকলেট আরও নানা স্বাদে এর দেখা পাওয়া যায়। বর্তমান বাজারে চকলেট দিয়ে বানানো নানা ডেজার্ট পাওয়া যায়।

আজ ১৩ সেপ্টেম্বর। আন্তর্জাতিক চকলেট দিবস। যদিও এই দিবসটি নিয়ে নানা তর্ক বিতর্ক রয়েছে। কারও মতে, ৭ জুলাই চকলেট দিবস। আবার, কেউ বলেন ১৩ সেপ্টেম্বর। ইউএস ন্যাশনাল কনফেকশনার্স অ্যাসোসিয়েশন ১৩ সেপ্টেম্বরকে আন্তর্জাতিক চকোলেট দিবস হিসেবে ঘোষণা করেছে। কারণ হার্শি চকোলেট কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা মিল্টন এস হার্শি ১৮৫৭ সালের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

চকলেটের আবিষ্কার প্রায় ৪০০০ বছর আগে হয়েছিল। জানা গিয়েছে, বর্তমান মেক্সিকোর মেসোআমেরিকাতে এর উদ্ভূত হয়েছিল। ‘চকোলেট’ শব্দটি নাহুয়াটল শব্দ ‘চোকোলাটল’ এবং অ্যাজটেক শব্দ ‘জোকোটল’, থেকে এসেছে। যাদের অর্থ যথাক্রমে ‘গরম পানি’ ও ‘তেতো পানি’। ৪০০০ বছর আগে ওলমেকরা (মেক্সিকোর প্রথম প্রধান সভ্যতা) কোকোবিন থেকে চকোলেটে বানানো শুরু করেছিল। যা তারা ওষুধ হিসেবে খেত। কয়েক শতাব্দী পরে, চকোলেট একটি পানীয় হিসেবে ব্যবহার হতে শুরু করে।

কোকোবিন একসময় খুবই মূল্যবান একটি উপাদান হিসেবে বিবেচিত হত। অ্যাজটেকরা (মেক্সিকোতে আধিপত্য বিস্তারকারী নেটিভ আমেরিকান) এটিকে মুদ্রা হিসেবে ব্যবহার করতেন। তারা বিশ্বাস করতেন যে, কোকোবিন তারা তাদের দেবতাদের কাছ থেকে উপহার পেয়েছিল।

ইতিহাস অনুসারে, চকোলেট ১৬ শতকে স্প্যানিশ এক্সপ্লোরার হার্নান কর্টেসের মাধ্যমে স্পেনে পৌঁছেছিল। তিনি আমেরিকা ভ্রমণের সময় কোকো আবিষ্কার করেছিলেন। এরপর চকোলেট খুব শীঘ্রই ইউরোপের অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়ে।

এক সময় চকলেট কেবল ধনী ব্যক্তিদের জন্যই ছিল। কারণ এটি বানাতে প্রয়োজনীয় সময় সাপেক্ষ প্রক্রিয়াটি বেশ ব্যয়বহুল ছিল। ১৮২৮ সালে, ভ্যান হাউটেন নামে একজন ডাচ রসায়নবিদ চকোলেট প্রেস মেশিন উদ্ভাবন করেন। এই মেশিনটি দিয়ে চকলেট বানানো বেশ সহজ হয়ে ওঠেছিল। যার ফলে চকলেট সাধারণ মানুষের আওতায় আসে।

আরও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর