শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০২৪

টেকনাফে হোয়াইক্যং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ৪৮তম মৃত্যু বার্ষিকী ও শোকদিবস পালিত

ওবাইদুর রহমান নয়ন, টেকনাফ প্রতিনিধি:

টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নুরুল বশর বলেছেন“১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে নির্মমভাবে হত্যার মাস্টার মাইন্ড ছিলেন জিয়াউর রহমান। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর হত্যাকারীদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকুরি দিয়ে তিনি তার সম্পৃক্ততার প্রমাণ দিয়েছেন। পাশাপাশি সংবিধানে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ সংযোজন করে তারা এই নৃশংস হত্যার বিচারের পথ বন্ধ করেছিলেন।”

১৯ আগস্ট দুপুরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে হোয়াইক্যং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

মাস ব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসেবে টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

এ উপলক্ষে শনিবার (১৯আগস্ট) সকালে কালো ব্যাজ ধারণ, জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মাল্যদান, আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পরে দুপুরে প্রায় চার হাজারের অধিক মানুষ গণভোজে অংশ গ্রহণ করেন।

শোক দিবসের আলোচনা সভা নয়াবাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মঈনুল হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আজিজুল হকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান বক্তা ছিলেন টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব মোরশেদ।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে মাহবুব মোর্শেদ বলেন, আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অতীতে বহু ষড়যন্ত্র হয়েছে, স্বপরিবারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। কিন্তু আওয়ামী লীগের অগ্রযাত্রা থামানো যায়নি। কাজেই জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে অগ্রযাত্রা তা থামানো যাবে না।

এতে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন, মাস্টার জাকারিয়া, সাইফুদ্দিন খালেদ, খলিলুর রহমান, বদিউল আলম, এম হাম জালাল, হোসেন আহমদ মেম্বার,বাদশা মেম্বার, ,ফরিদ আহমদ, সেলিম শিকদার, নবী হোসেন,শাহ আজিজুর রহমান মামুন,মোঃ জামাল ,জামাল উদ্দিন প্রমুখ, এ সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর