শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪

সালিশ বৈঠকে জনপ্রতিনিধির সামনে ছুরিকাঘাতে যুবককে হত্যা

সিসিএন অনলাইন ডেস্ক:

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় সালিশ বৈঠকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সামনে ছুরিকাঘাতে আনোয়ার হোসেন (৩৬) নামের এক যুবককে হত্যা করা হয়েছে। রোববার (২৫ জুন) সকালে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

গতকাল শনিবার গভীর রাতে উপজেলার পূর্ববড় ভেওলা ইউনিয়নের দরবেশকাটা স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আনোয়ার হোসেন ওই এলাকার আবু তাহেরের ছেলে।

স্থানীয় লোকজন জানায়, ৬-৭ মাস আগে নাসির উদ্দিন নামের এক ব্যক্তি তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বাকবিতন্ডার জেরে আনোয়ার হোসেনের স্ত্রীর হাতে কামড় দেন। এ বিষয় নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য সুলতান মাহমুদ সালিশের মাধ্যমে নাসির উদ্দিনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এই জরিমানার টাকা যথাযথ পরিশোধও করেন নাসির উদ্দিন।

কয়েকদিন আগে ওই এলাকার মোহাম্মদ এনামের ছেলে মো. আয়াজ (২২) আনোয়ার হোসেনকে ‘এক কামড়ে ১০ হাজার টাকা’ উস্কানিমুলক কথা বলে ক্ষ্যাপায়। এক পর্যায়ে এই বিষয় নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য সুলতান মাহমুদকে বিচার দেন আনোয়ার।

শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে স্থানীয় বাজারে একটি কামারের দোকানের সামনে বসে ইউপি সদস্যের উপস্থিতিতে এই বিষয়ে বিচার চলছিল। এক পর্যায়ে আয়াজ কামারের দোকান থেকে ছুরি নিয়ে আনোয়ার হোসেনের পিঠে ও মাথায় আঘাত করে।

পরে স্থানীয়রা আনোয়ারকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

নিহত আনোয়ার হোসেনের স্ত্রী ইয়াসমিন আক্তার বলেন, স্থানীয় মেম্বার সুলতান মাহমুদকে বিচার দেওয়ায় আমার স্বামীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা না দেওয়ায় তিনি মারা যান।

চকরিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবদুল জব্বার বলেন, আনোয়ার হোসেনের শরীরে ছুরির দুটি আঘাত রয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। রোববার দুপুর পর্যন্ত থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়নি নিহত ব্যক্তির পরিবার। হত্যার সঙ্গে জড়িতদের আটকের চেষ্টা চলছে।

আরও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর