বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪

হাতঘড়ি মার্কার অফিস পুড়ানোর ঘটনায় চেয়ারম্যান মক্কি ইকবালসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

সিসিএন ডেস্ক নিউজ:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় কল্যাণ পার্টির “হাত ঘড়ি” মার্কার নির্বাচনী প্রচারণা অফিস পুড়ানোর ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। দলের দপ্তর সম্পাদক আল আমিন ভূঁইয়া রিপন বাদী হয়ে অভিযোগটি দায়ের করেন। মামলায় কৈয়ারবিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ ৫ জনের নাম উল্লেখ করে আসামী করা হয়েছে অজ্ঞাত আরো ২০ জনকে।

অভিযুক্তরা হলেন, অভিযুক্তরা হলেন, কৈয়ারবিল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও খোজাখালী এলাকার নুরুল হোসেনের ছেলে ইকবাল হোসন প্রকাশ মক্কি ইকবাল (৩৭), ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা রহমদাদ এর ছেলে এহতেশামুল হক (৩৫), ৯ নং ওয়ার্ডের মৃত আবুল কাসেমের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩০), ৫ নং ওয়ার্ডের জাকের আহম্মদের ছেলে মোহাম্মদ রুবেল (৩৯) এবং একই ওয়ার্ডের আকতার আহম্মদের ছেলে মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম (৩৮)।

বাদি তার লিখিত অভিযোগে বলেন, কৈয়ারবিল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইকবাল হোসন ওরফে মক্কি ইকবালের নেতৃত্বে ১৮ থেকে ২০ জন সন্ত্রাসী আমাদের হাতঘড়ি প্রতীকের নির্বাচনী প্রচারণা অফিসে আগুন দেয়। তারা সবােই স্বতন্ত্র প্রার্থী জাফর আলম এর সমর্থক। এরআগেও মক্কি ইকবাল হাতঘড়ি মার্কার প্রচারনার সময় মাইকম্যান মোঃ সোহেল (৩০) কে মারধর করে প্রচারনায় বাধা দেয়। প্রতিনিয়ত হাতঘড়ি প্রতীকের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলছে জাফরের সন্ত্রাসীরা। ইতিমধ্যে নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটির কাছে অভিযোগ দেয়া হয়েছে। কিন্তু কোন অবস্থায় সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রণ করা যাচ্ছেনা।

অভিযুক্তরা এলাকায় চিহ্নিত অপরাধী ও একাধিক মামলার আসামী। এসব অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে একটি অবাধ শান্তিপূর্ণ উৎসব মূখর নির্বাচন উপহার দেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান তিনি।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মো: আলী বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর