বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪

৫৪৬ রানের রেকর্ড জয় বাংলাদেশের

সিসিএন অনলাইন ডেস্ক:

মিরপুরে একমাত্র টেস্টে আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশাল জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। খেলার শুরু থেকে একচেটিয়া দাপট ছিলো টাইগারদের। স্বাগতিকদের দেয়া ৬৬২ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে সব উইকেট হারিয়ে ১১৫ রান করেছে সফরকারীরা।

ফলে শনিবার চতুর্থদিনে ৫৪৬ রানের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা।

শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনেই ঐতিহাসিক জয়টি তুলে নেয় লিটন দাসের দল। দ্রুত উইকেট পড়তে থাকায় প্রথম সেশনের খেলাও একটু বাড়ানো হয়। লাঞ্চ ব্রেক পর্যন্ত আর অপেক্ষায় রাখেনি বাংলাদেশ। প্রত্যাশা অনুযায়ীই শেষ হয় টেস্ট ম্যাচটি।

ব্যাটিং-বোলিংয়ে দাপুটে ক্রিকেট খেলে জিতেছে বাংলাদেশ। ২০২১ সালে চট্টগ্রামে প্রথমবার ‍মুখোমুখি হয়ে আফগানদের কাছে হেরেছিল বাংলাদেশ। সেটির মধুর প্রতিশোধ তুললো পরের দেখায়।

প্রথম ইনিংসে ৩৯ ওভারে ১৪৬ রানে গুটিয়ে যায় আফগান দলটি। বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহের আশা জাগিয়ে ৯ রানে শেষের ৫ উইকেট হারিয়ে চারশর আগেই গুটিয়ে গিয়েছিল। দ্বিতীয় ইনিংসে সেই ভুল করেনি। ৪ উইকেটে ৪২৫ রান তুলে আফগানদের সামনে পাহাড় দাঁড় করায়। ৬৬২ রানের অসম্ভব লক্ষ্য দেয় স্বাগতিকরা।

প্রথম ইনিংসে ২৩৬ রানের লিড বাংলাদেশকে মিরপুর টেস্টে এগিয়ে দেয় অনেকটা। প্রথম ইনিংসে পর দ্বিতীয় ইনিংসেও নাজমুল হোসেন শান্ত সেঞ্চুরি করে লিড বড় করেন। সেটিকে চূড়ায় নিয়ে যান মুমিনুল হক ও লিটন দাস।

২৬ ইনিংস পর সেঞ্চুরি পান মুমিনুল। ১২১ রানে অপরাজিত থাকেন বাঁহাতি তারকা। টাইগার অধিনায়ক লিটন অপরাজিত থাকেন ৬৬ রানে।

তার আগে শান্ত ১২৪ রানের ইনিংস খেলেন। প্রথম ইনিংসে করেছিলেন ১৪৬। জাকির হাসানের অবদানও কম নয়। শান্তর সঙ্গে বড় জুটির পথ ধরে খেলে যান ৭১ রানের ইনিংস। রানআউট না হলে আরেকটি সেঞ্চুরি হলেও হতে পারত বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে।

শান্তময় ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ইবাদত হোসেন ৪ উইকেট নিয়ে রাখেন বড় অবদান। দ্বিতীয় ইনিংসে নেন একটি উইকেট। তাসকিনের ৪ উইকেটের পাশাপাশি শরিফুল ইসলাম নেন তিন উইকেট।

মিরপুরে স্পিনিং উইকেটে টেস্ট খেলার অভ্যস্থতা থেকে বাংলাদেশ বেরিয়ে আসে এই ম্যাচ থেকেই। কোনো পেসার ছাড়াই একাদশ সাজাতেও দেখা যেতো বাংলাদেশকে। এবার পেস স্বর্গে তিন পেসার নিয়ে নামে বাংলাদেশ। প্রত্যাশা পুরোপুরি মিটিয়েছেন তারা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ (প্রথম ইনিংস): ৩৮২/১০ (শান্ত ১৪৬, জয় ৭৬; মাসুদ ৫/৭৯)

আফগানিস্তান (প্রথম ইনিংস): ১৪৬ (৩৯ ওভার) (নাসির ৩৫, আফসার ৩৬; এবাদত ৪/৪৭)

বাংলাদেশ (দ্বিতীয় ইনিংস): ৪২৫/৪ (ইনিংস ঘোষণা) (৮০ ওভার) (শান্ত ১২৪, মুমিনুল ১২১*, জাকির ৭১, লিটন ৬৬*; জহির ২/১১২)

আফগানিস্তান (দ্বিতীয় ইনিংস): ১১৫ অল আউট (রহমত ৩০) (তাসকিন ৪/৩৭)

আরও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর